বৃহস্পতিবার ২৯ জুন ২০১৭


নিজের কন্যা সন্তানের মতো ভাবতে শিখুন গৃহকর্মীদের


আমাদের অর্থনীতি :
12.01.2017

উম্মুল ওয়ারা সুইটি: গৃহকর্মীদের সুরক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে গৃহকর্তার পরিবারকে। বিশেষ করে তারা যদি বাড়ির কাজের জন্য কিশোরী এবং তরুণীদের

রাখেন তাহলে তাদের সম্ভ্রম রক্ষার দায়িত্বও তাদের উপর পড়ে। নিজের ঘরের কন্যা সন্তানদের মতোই চিন্তা করুন গৃহকর্মীকে। তাহলে বিষয়টি সহজ হবে।

বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সালমা আলী বলেন, দুবেলা খাওয়া আর সামান্য কিছু টাকার জন্য গ্রাম থেকে শহরে বা শহরতলীর বিভিন্ন বাসা বাড়িতে কিশোরী ও তরুণী মেয়েরা গৃহকাজে আসে। অনেক সময়ই তাদের পড়তে হয় যৌন হয়রানিতে। বাড়ির দারোয়ান, ড্রাইভারসহ কখনও কখনও পরিবারের সদস্যদের দ্বারা এসব গৃহকর্মীরা ধর্ষণের শিকার হয়। জানাজানি হওয়ার পর তাদের দায়িত্ব আর কেউ নিতে চায় না। এমনকি নারী হলেও গৃহকর্তী বাড়ির কাজের মেয়ে বলে অন্যত্র দোষ চাপিয়ে দিয়ে থাকেন। আর নির্যাতিত মেয়ের পরিবার তখন বিপাকে পড়ে।

সালমা আলী বলেন, আমরা বলতে চাই, আপনারা ঘরের কাজের সহযোগিতার জন্য এসব কিশোরী-তরুণীদের বাসায় নিয়ে আসেন। অথচ এদের দায়িত্ব নিতে চান না। একবার নিজের এই বয়সী কন্যাদের কথা ভাবুন। তাহলেই দেখবেন একটি মেয়ে নির্যাতন থেকে রক্ষা পাবে। সমাজের প্রতি দায়িত্ব সবারই রয়েছে। শুধু নিজের সন্তানের সুরক্ষা দিলে তো হবে না। আপনি এবং আপনার সন্তানও সমাজের অংশ, আর গৃহকর্মীও সমাজেরই অংশ। নিজের কন্যা সন্তানের মতো ভাবতে শিখুন গৃহকর্মীদের।