মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » পাকিস্তানে সন্ত্রাসীদের মৃত্যুদ- কার্যকর হচ্ছে না, দাবি হামিদ মীরের


পাকিস্তানে সন্ত্রাসীদের মৃত্যুদ- কার্যকর হচ্ছে না, দাবি হামিদ মীরের


আমাদের অর্থনীতি :
12.01.2017

আমিন ইকবাল: পাকিস্তান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে দেশটির বিশিষ্ট সাংবাদিক ও জিও টিভির নির্বাহী সম্পাদক হামিদ মীর বলেছেন, সন্ত্রাস নির্মূলে গঠিত বিশেষ সামরিক আদালতে ১৬০ জনের অধিক সন্ত্রাসীর মৃত্যুদ- কার্যকর করার কথা জানা গেলেও এখন পর্যন্ত মাত্র ১২ জনের মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এ ১২ জনের দ- কার্যকর করার কথা স্বীকার করেছে। মঙ্গলবার জিও টিভির নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘ক্যাপিটাল টক’-এ তিনি একথা বলেন। দৈনিক পাকিস্তান উর্দু।

অনুষ্ঠানে হামিদ মীর প্রশ্ন তোলেন, বাকিদের ফাঁসিতে ঝোলানো হলো না কেন? পরক্ষণে নিজেই এর উত্তরে বলেন, অধিকাংশ সন্ত্রাসীকে ফাঁসিতে না ঝোলানো কারণ, সন্ত্রাসীদের ক্ষমা করে দেওয়ার আপিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে গিয়ে আটকে ছিল। ওই সব আপিল রাষ্ট্রপতি পর্যন্ত পৌঁছেনি। তিনি বলেন, এসব আপিল রাষ্ট্রপতির কাছে পৌঁছানো হলে দেশের স্বার্থে রাষ্ট্রপতি এসব আবেদন বাতিল করে দিতেন। এতে করে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত সকল সন্ত্রাসীকে ফাঁসিতে ঝোলানো হতো। পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে হামিদ মীরের এমন তথ্য প্রকাশের পর দেশটির বোদ্ধা মহলে প্রশ্ন উঠছেÑ ‘তাহলে কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সন্ত্রাসীদের বাঁচিয়ে রাখতে চায়?

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে সন্ত্রাস নির্মূল ও দ্রুত বিচারের জন্য দু’বছর আগে বিশেষ সামরিক আদালত গঠন করা হয়। এর মেয়াদ পূর্ণ হলে গত ৮ জানুয়ারি এ আদালত বন্ধের ঘোষণা আসে। তবে এরই মধ্যে সামরিক আদালতে ২৭৪টি মামলা দায়ের করা হয়। ১৬১টি মামলায় মৃত্যুদ- ও ১১৩টি মামলায় কারাভোগের শাস্তি দেওয়া হয়। সম্পাদনা: রাশিদ রিয়াজ