মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » রিজার্ভ ব্যাংক নয় এখন সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী মোদি : অমর্ত্য সেন


রিজার্ভ ব্যাংক নয় এখন সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী মোদি : অমর্ত্য সেন


আমাদের অর্থনীতি :
12.01.2017

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নোট বাতিল নিয়ে সরকারের সমালোচনায় সরব হয়েছেন আগেই। এবার রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া (আরবি আই)-এর স্বশাসন নিয়ে প্রশ্ন তুলে ফের মোদি সরকারকে নিশানা করলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। নোট বাতিল নিয়ে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদের বক্তব্য, আমার মনে হয় না, এই সিদ্ধান্ত আরবি আই নিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত নিশ্চয়ই প্রধানমন্ত্রীর। এখন আর কোনো সিদ্ধান্ত আরবি আই নেয় না। তিনি বলেন, নোট বাতিল কালো টাকা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু ‘সন্দেহের অবকাশ’ পেয়ে চলেছেন মোদি। নয়াদিল্লিতে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ ভাবছেন, কালো টাকাকে জব্দ করতে অনেক কিছু করছেন প্রধানমন্ত্রী। এতেই ছাড় পেয়ে যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। এক্ষেত্রে ধনীরা জব্দ হয়েছে, এই ধারণার বশেই সাধারণ মানুষ নোট বাতিলের পক্ষে দাঁড়াচ্ছেন। এবিপি

অমর্ত্য সেন বলেছেন, রঘুরাম রাজনের জমানায় রিজার্ভ ব্যাংক অনেকটাই স্বাধীন ছিল। ভারতের এই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর পদে একটা সময় ছিলেন আইজি পটেল ও মনমোহন সিংহর মতো ব্যক্তিত্ব। ওয়াইভি রেড্ডি ও বিমাল জালানের মতো প্রাক্তন গভর্নররাও রিজার্ভ ব্যাংকের স্বশাসন বজায় রাখার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছিলেন।

অমর্ত্য সেন বলেছেন, নগদে থাকা সামান্য পরিমাণ মাত্র ৬-৭ শতাংশ কালো টাকাকে নষ্ট করতে বাজার থেকে কেন ৮৬ শতাংশ নোট তুলে নেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত সরকার নিল তা খুবই হতবুদ্ধিকর। তিনি বলেছেন, জাপান ও আমেরিকার মতো দেশগুলোতেও প্রচুর নগদ টাকা রয়েছে।

সরকার নোট বাতিলের আরও একটি কারণ হিসেবে দেখিয়ে ছিল জাল নোটকে। কিন্তু জাল নোট খুব একটা বড় সমস্যা নয় বলেও মন্তব্য করেছেন অমর্ত্য সেন।

তিনি বলেছেন, অল্প সংখ্যক লোক নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এক্ষেত্রে রাজ্য সরকারগুলোর সঙ্গে কোনো পরামর্শ করা হয়নি। যেহেতু ভারতে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো রয়েছে, তাই এক্ষেত্রে রাজ্যগুলোর সঙ্গে পরামর্শ করা উচিত ছিল বলে মন্তব্য করেছেন অমর্ত্য সেন।

দুর্নীতি মোকাবিলা ও একইসঙ্গে দ্রুত নগদহীন অর্থনীতি গড়ে তোলার লক্ষ্য-উভয় লক্ষ্যের ক্ষেত্রেই নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত যে বড়সড় ভুল, তা আরও একবার স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ। তিনি বলেছেন, সম্পূর্ণ এক তরফাভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। দেশের জনগোষ্ঠীর একটা বড় অংশ এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এরপরও মোদির প্রতি জনসমর্থন বাড়ছে কেন, এই প্রশ্নের উত্তরে অমর্ত্য সেন বলেছেন, মোদি যে দারুন রাজনীতিবিদ, সে সম্পর্কে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই। মানুষকে বোঝানোর একটা ক্ষমতা তার রয়েছে। এই প্রসঙ্গে উনবিংশ শতকের ফরাসি সম্রাট নেপোলিয়নের উদাহরণও টেনেছেন। তিনি বলেছেন, নেপোলিয়নও বিভিন্ন ধরনের প্রচারের মাধ্যমে তার একটা অসাধারণ ভাবমূর্তি তৈরি করতে পেরেছিলেন। রাশিয়া অভিযানের ব্যর্থতার পর সেই ভাবমূর্তি খসে পড়েছিল। সম্পাদনা: ইমরুল শাহেদ