বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭


কুমিল্লা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে একটু ভাবুন


আমাদের অর্থনীতি :
16.02.2017

 

শেখ আদনান ফাহাদ

বিগত ৮ বছরে নানামুখি উন্নয়ন কর্মকা- দেখিয়েছে বর্তমান সরকার। বিদ্যুৎ উৎপাদন, যুদ্ধাপরাধের বিচার, পদ্মাসেতুসহ অনেক বড় বড় কাজ করে দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে তুলেছে সরকার। ক্ষমতা ও জনপ্রশাসনের বিকেন্দ্রীকরণও করছে। এর ধারাবাহিকতায় ময়মনসিংহ বিভাগ হয়েছে। ভারতীয় উপমহাদেশের অন্যতম সমৃদ্ধ জনপদ কুমিল্লা অঞ্চল নিয়েও একটা বিভাগ গঠন করার কথা ঘোষণা করেছে সরকার। খুবই ইতিবাচক একটা পদক্ষেপ। কিন্তু নতুন বিভাগের এ নামকরণ নিয়ে দেখা দিয়েছে জটিলতা। সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী, কুমিল্লার ময়নামতির সন্তান মোস্তফা কামাল এলান করেছেন, নতুন বিভাগের নাম হবে ‘ময়নামতি বিভাগ নামে’। শুধু কুমিল্লা জেলা নয়, একসময়ের বৃহত্তর কুমিল্লার ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুরের সর্বস্তরের মানুষের একটা বড় অংশ এর বিরুদ্ধে অবস্থান নেবে বলে আমার ধারণা। কুমিল্লা তো শুধুমাত্র কুমিল্লা জেলার বিষয় নয়। কুমিল্লা শুধু একটা নাম নয়। একটি দীর্ঘ ইতিহাস।

প্রগতি আর উন্নয়নের ইতিহাস। একসময়ের ত্রিপুরা রাজের অধীনে পরিচালিত কুমিল্লা এখন বাংলাদেশের একটি জেলা হলেও এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে শতশত বছরের ইতিহাস। ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর, আর বর্তমান কুমিল্লা মিলে একসময় বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা ছিল। সেই কুমিল্লা বিভাগ হবে এটা তো সময়ের দাবি। কিন্তু নাম কেন ময়নামতি হবে? সরকার একটা কাজ করবে তার পেছনে যুক্তি থাকবে না? কিছু একটা বললেই তো মানুষ মেনে নেবে না। আইসিসিতে ভারতের দাদাগিরি নিয়ে বিপ্লব করে মোস্তফা কামাল বেশ জনপ্রিয় হয়েছিলেন। এবার মনে হয় মানুষের বিরক্তি অর্জনের পালা। সরকারের উন্নয়নযাত্রাকে বিতর্কিত করতে এমন দু-একটি কাজই যথেষ্ট। ময়মনসিংহের নাম তো ঠিকই রাখা হলো। তাহলে আমাদের কুমিল্লার নাম রাখতে কী অসুবিধা? ময়নামতি কুমিল্লা জনপদের একটা ছোট অংশ মাত্র। তবে নামকরণ নিয়ে খুব সুক্ষ্ম রাজনীতিও হচ্ছে।

এক শ্রেণির অতি প্রতিক্রিয়াশীল এর মধ্যে ধর্মযুদ্ধ খুঁজে বেড়াচ্ছে। রাষ্ট্রকে সাবধান করা আওয়াম হিসেবে আমাদের দায়িত্ব। সাম্প্রদায়িকতার ভূত আমাদের সকলের ভিতরে আছে। কেউ কেউ প্রকাশ করছে, কেউ করছে না। কিন্তু সাপের লেজে পা দিলে কামড় খেতে হতে পারে। অতি জ্ঞানীরা সাবধান না হলেও রাষ্ট্রকে সতর্ক থাকতে হবে। একজনকে দেখলাম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বলেছেন, ‘কুমিল্লা’ পাকিস্তান আমলে নামকরণ করা হয়েছে এবং এই জন্যই এর পরিবর্তন দরকার। ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে অনেকে বিবাড়িয়া বলে ডাকেন। আমি এর শক্ত প্রতিবাদ করি। ভাইসব, দেখেন চিন্তা করেÑ কোথায় হাত দিচ্ছেন। পরে কিন্তু আর সামলাতে পারবেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে একজন আওয়াম হিসেবে অনুরোধ থাকবেÑ কুমিল্লা জেলা, সিটি করপোরেশন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুরের শিক্ষিত ব্যক্তিবৃন্দ, রাজনীতিবিদসহ সব শ্রেণির মানুষের সঙ্গে কথা বলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

লেখক: সহকারী অধ্যাপক, সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

সম্পাদনা: আশিক রহমান