সোমবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » প্রতারক সুমন গ্রেফতার
    রাজধানীতে বিয়ের প্রলোভনে হোটেলে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ


প্রতারক সুমন গ্রেফতার
রাজধানীতে বিয়ের প্রলোভনে হোটেলে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ


আমাদের অর্থনীতি :
16.02.2017

ইসমাঈল হুসাইন ইমু: রাজধানীতে এক গৃহবধূকে বিয়ের প্রলোভনে হোটেলে আটকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই ঘটনায় জড়িত সুমন কুমার কু-ু নামের ওই প্রতারককে আটক এবং গৃহবধূকে উদ্ধার করেছে।

জানা যায়, গত ২২ জানুয়ারি ওই গৃহবধূ বগুড়া থেকে তার বড় ভাই সবুজ খন্দকারের বাড্ডার বাসায় বেড়াতে আসেন। একবছর আগে তার স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। এ সুযোগে প্রতারক সুমন কুমার কু-ু পূর্বপরিচয়ের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় গৃহবধূকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু সে হিন্দু হওয়ায় রাজি হননি গৃহবধূ। একপর্যায়ে সুমন ও তার পরিবারসহ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করবে এমন আশ্বাস দিয়ে বিয়েতে রাজি করায়। পরে গত ১ ফেব্রুয়ারি গৃহবধূকে তার মেয়েসহ রাত সাড়ে ১১টায় পান্থপথ এলাকার ওলিও ড্রিম হ্যাভেন নামক আবাসিক হোটেলের ৯০১ (এ) কক্ষে নিয়ে রাত্রি যাপন করে এবং তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণও করে সে। পরদিন সকাল ১১টায় একই এলাকার আরেকটি হোটেলে তাকে আবারও ধর্ষণ করে।

এদিকে গত ৭ ফেব্রুয়ারি গৃহবধূর ভাই তার বোন নিখোঁজ হওয়া সংক্রান্তে বাড্ডা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন। এরপরই তদন্তে মাঠে নামে পিবিআই। পরে পিবিআইয়ের একটি টিম মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি রাতে পান্থপথের ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে প্রতারক সুমন কুমার কু-ুকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে সুমন। এ বিষয়ে ওই গৃহবধূ শেরেবাংলা নগর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

পিবিআই কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সুমন বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে একাধিক মেয়েদেরকে অর্থ ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে আবাসিক হোটেলে নিয়ে তাদের সাথে দৈহিক সম্পর্ক তৈরি করে। প্রধানত বিবাহিত মেয়েরাই তার শিকারে পরিণত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় সুমন কুমার কু-ু নিজের ছদ্মনাম-অপু চৌধুরী পরিচয় দিয়ে হোটেল কক্ষ ভাড়া নেয়। তার ফাঁদে পরে অনেক মেয়ের সংসার ভেঙে গেছে। আটক সুমন কুমার কু-ুর বিরুদ্ধে বরিশাল ও বগুড়ায় একাধিক নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা রয়েছে। সম্পাদনা: এনামুল হক