মঙ্গলবার ২৪ অক্টোবর ২০১৭


গাড়ি ব্যবহারকারীরা বাংলাদেশে নেই


আমাদের অর্থনীতি :
16.02.2017

রাশিদ রিয়াজ: যেসব গাড়ির তালিকা ও কাগজপত্র বিশ্বব্যাংকের কাছে চেয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দারা সেগুলোর ব্যবহারকারীরা বাংলাদেশ ছেড়ে চলে গেছেন। বিধি অনুসারে কেউ বাংলাদেশ ছেড়ে যাওয়ার আগে মিশন প্রধানের এ বিষয়টি নিষ্পত্তি করার কথা। কিন্তু তা করা হয়নি। তাই মিশন প্রধান এর দায় এড়াতে পারেন না। সেজন্য ২০০৩ সালের এসআরও (সেলফ রেগুলেটরি অর্গানাইজেশন) আইনের ২৩৭ ধারার ৯ (২) বিধি অনুযায়ী কাগজপত্রসহ ওই গাড়িগুলো তলব করেছে এনবিআর।
যেসব গাড়ি ও পাস বই তলব করা হয়েছে ও বিশ্বব্যাংকের যেসব কর্মকর্তারা তা ব্যবহার করতেন তারা হলেন, ১. সুকন্তলা আকমিমানা। তার পাস বই নম্বর ০১/২০০৬। ২. ক্যাথিনোয়েল খো। পাস বই নম্বর ৪০/২০০৭। ৩. ভিনয়া সরূপ। পাস বই নম্বর ৫০/২০০৬। ৪. ওসমান সেকেল। পাস বই নম্বর ৫৫/২০১০। ৫. হোসেন এডগারদো লেডেজক্যামডস। পাস বই নম্বর ৬২/২০০৭। ৬. মিরভা টোলিয়া- তার পাস বই নম্বর ৭১/২০১১। ৭. মি. ডেভিড। পাস বুই নম্বর ৭৩/২০০৭। ৮. গ্রিনা ইগরসিনা। পাস বই নম্বর ৮০/২০০৭। ৯. মৃদুলা সিং। পাস বই সিবিসি ০০৩৩/২০১৩। ১০. তাহসিন সায়িদ খান। পাস বই নম্বর ২৭/২০০৯। ১১. মায়ামি ইসোগেইন। পাস বই নম্বর ৬০/২০০৬। ১২. তানিয়া মানা। পাস বই নম্বর ৬৫/২০০৭। ১৩. সেরেন ওজের। পাস বই নম্বর ৮৫/২০০৭। ১৪. ফ্যাবিও পিটালুগা। পাস বই নম্বর ৫২/২০০৭। ১৫. হেলেন জয় ক্রেইগ। পাস বই নম্বর ০৯/২০০৮। এছাড়াও ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশনের প্রমিতা দাসগুপ্তের ব্যবহৃত গাড়িও রয়েছে।