রবিবার ২২ অক্টোবর ২০১৭


মহারাষ্ট্রে মুসলিম ছাত্রীদের জোর করে শূকরের গোশত খাওয়ানোর অভিযোগ


আমাদের অর্থনীতি :
17.02.2017

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের মহারাষ্ট্রে এক অনাথাশ্রম বা এতিমখানায় মুসলিম ছাত্রীদের জোর করে শূকরের গোশত খাওয়ানোর অভিযোগ ওঠায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অকেলা ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন বা এবিআই নামে অনুসন্ধানী গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে এক স্টিং অপারেশন সূত্রে গত (রোববার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, মহারাষ্ট্রের পালঘার জেলার ভাসাইতে অবস্থিত খ্রিস্টান অনাথ আশ্রম ‘ব্লেসড ট্রিনিটি অরফ্যানেজ অ্যান্ড কনভেন্ট’-এ তিন মুসলিম ছাত্রী তীব্র জুলুমের শিকার হয়েছে। ওই ছাত্রীরা শূকরের গোশত খেতে অস্বীকার করলে সেখানকার সন্ন্যাসিনীরা জোর করে তাদের তা খেতে বাধ্য করেছে। এক ছাত্রী এবিআইকে জানায়, ওরা সকলে জানে আমরা মুসলিম। যদিও তা সত্ত্বেও সিস্টাররা জোর করে আমাদের মুখে শূকরের গোশত গুঁজে দিতেন। পার্সটুডে

এক ছাত্রীর মা বলেন, ‘মুসলিমদের কেউ যদি শূকরের নাম মুখে উচ্চারণ করে তাহলে তার মুখ ৪০ দিন পর্যন্ত অপবিত্র থাকে। আমি খুব হতাশ হয়েছি যে, এসব জানা সত্ত্বেও সিস্টাররা আমাদের মেয়েদের মুখের মধ্যে জবরদস্তি করে শূকরের গোশত পুরে দিয়েছেন।’ সম্পাদনা: মাসুম মুনাওয়ার