সোমবার ২১ অগাস্ট ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » পরিবর্তনের জন্য ভোট চায়-সীমা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় ভোট চায়-সাক্কু কুমিল্লা সিটি নির্বাচন


পরিবর্তনের জন্য ভোট চায়-সীমা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় ভোট চায়-সাক্কু কুমিল্লা সিটি নির্বাচন


আমাদের অর্থনীতি :
21.03.2017

তারিকুল ইসলাম শিবলী, কুমিল্লা: কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণার সোমবার ছিল ৬ষ্ঠ দিন। চৈত্রের সকালে থেমে থেমে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। তবে মেঘ-বৃষ্টি বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের আঞ্জুম সুলতানা সীমা ও বিএনপির মনিরুল হক সাক্কুর জন্য। তারা সূর্য উঠার সাথে সাথেই বেরিয়ে পড়েন ভোটারদের কাছে। সাথে ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।

গতকাল সকাল থেকে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা নগরীর দক্ষিণের ১৯,২০ ও ২১নং ওয়ার্ডে ব্যাপক গণসংযোগ করেন। এ সময় তিনি ওয়ার্ড তিনটিতে তিনটি উঠান বৈঠকও করেন। ওয়ার্ডের প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় তিনি গণসংযোগ করে নৌকা প্রতীকের পক্ষে ভোট চান। তার সাথে ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম ও পরিকল্পনামন্ত্রীর মেয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চেয়ারম্যান নাফিসা কামাল। আজ বেলা ১১টায় সীমা দলীয় কার্যালয়ে তার নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করবেন।

অপরদিকে, তার পক্ষে নগরীর ১নং ওয়ার্ডে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, সদস্য জহির উদ্দিন মাহমুদ লিফটন, ২নং ওয়ার্ডে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন, সদস্য পোদ্দার, ৬নং ওয়ার্ডে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, সদস্য মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটনসহ স্থানীয় নেতাদের নিয়ে নৌকার পক্ষে পৃথক পৃথকভাবে গণসংযোগ করে উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। এ ছাড়া অন্যান্য ওয়ার্ডেও গণসংযোগ করে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় টিম।

অপরদিকে, ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করা বিএনপি দলীয় মেয়র  প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু সকাল থেকে গণসংযোগ শুরু করেন সদর দক্ষিণ উপজেলার ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে। এই দুটি ওয়ার্ডে তিনি ৪টি উঠান বৈঠকে বক্তব্য রাখেন। প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় উন্নয়নের কাজ অব্যাহত রাখার জন্য ধানের শীষে ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।

এ ছাড়াও  নগরীর ১৫নং ওয়ার্ডে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদের নেতৃত্বে, ১৬নং ওয়ার্ডে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কর্নেল (অব.) আনোয়ারুল আজিম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়ার নেতৃত্বে, ২৩নং ওয়ার্ডে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুকের নেতৃত্বে,  নগরীর ১০নং ওয়ার্ডে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বে, নগরীর ১৯নং ওয়ার্ডে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের নেতৃত্বে প্রচারণা চালানো হয়। সম্পাদনা: এনামুল হক