রবিবার ২৫ জুন ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » অফবিট » সরকারি সাহায্য পেতে ইসলাম গ্রহণ করল ইন্দোনেশিয়ার উপজাতি


সরকারি সাহায্য পেতে ইসলাম গ্রহণ করল ইন্দোনেশিয়ার উপজাতি


আমাদের অর্থনীতি :
19.06.2017

লিহান লিমা: ঘরবাড়ি ধ্বংস হওয়ার পর সরকারের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা পেতে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে ইন্দোনেশিয়ার নোমাডিক উপজাতি। দেশটির বাটাং হারি জেলার জাম্বি গ্রামের ওরাং থিম্বা গোষ্ঠির ২০০ সদস্য ধর্মান্তরিত হয়।

পাম গাছ ও কয়লা খনির কারণে তাদের শিকারের জমি নষ্ট হওয়ায় জীবন-ধারণের হুমকির মুখে পড়ে তারা। এরপর বারবার সরকারের কাছে আবেদন করলেও তা গৃহীত হয় নি।  ধর্মান্তরিত হওয়া ইউসুফ মোহাম্মদ বলেন, ‘সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ, সরকার এখন হয়তো আমাদের আর্থিক সাহায্যের বিষয়ে মনোনিবেশ করবে।’

ইসলাম গ্রহণ করার পর পাল্টে গিয়েছে তাদের জীবনধারা। পূর্বের ক্ষীণ পোশাক বাদ দিয়ে এখন ইসলামি এনজিও ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ত্রাণে তারা শরীর ঢাকা পোশাক পরছেন। এছাড়া, ছেলেদের মাথায় টুপি আর মেয়েদের মাথায় হিজাব, শিশুরাও এই রীতির বাহিরে নয়। কাঠের কুটিরের ভেতর থেকে ভেসে আসছে কুরআন তেলওয়াতের সুর। তবে অধিকার সংস্থাগুলো বলছে, ‘ ভাললাগা থেকে নয়, নিজেদের শিকারের জমি উন্নত করতে এবং জীবনধারণ করার জন্য তাদের ধর্মান্তরিত হওয়া ছাড়া আর কোন উপায় ছিল না।’

সরকারের দৃষ্টি আর্কষণ করতে মুসলিম হওয়া এই উপজাতির সদস্যরা বলেন, এতদিন তাদের যে অধিকারগুলো এড়িয়ে যাওয়া হয়েছিল এখন তারা সেটি ফেরত পাবে। গহীন বনে বাস করা এই মানুষরা আশা করছেন, ইসলামী বিভিন্ন এনজিও এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় তাদের সাহায্য করবে। তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র হবে এবং তারা স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ মৌলিক অধিকারগুলো পাবে।

ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ বলছেন, এই পরিবর্তন অত্যন্ত ইতিবাচক কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, এটি সরকারের ব্যর্থতার পরিচায়ক সরকার বিভিন্ন গোষ্ঠির অধিকার সংরক্ষণে ব্যর্থ হয়েছে। সূত্র: ডেইলি মেইল