শনিবার ১৯ অগাস্ট ২০১৭


ঘরেই ক্ষোভের মুখে পাকিস্তান সরকার


আমাদের অর্থনীতি :
13.08.2017

 

আজকাল : এবার নিজের দেশের একাংশেরই ক্ষোভের মুখে পাকিস্তানের সরকার। পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের রাজনৈতিক কর্মী তৈফুর আকবর অভিযোগ করেছেন, তাদের অঞ্চলের বাসিন্দারা চরম দুর্দশায় দিন কাটাচ্ছেন। সেখানে রাস্তা নেই, কলকারখানা নেই। ফলে কর্মসংস্থানও নেই, স্বাস্থ্য পরিষেবা নেই। নাগরিকদের প্রায় ক্রীতদাসের মতো অবস্থা। তার আরও অভিযোগ, ন্যাশনাল অ্যাকশন প্ল্যানের আওতায় বই পড়াতে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে পাকিস্তান সরকার। যখন খুশি কাউকে গ্রেপ্তার করে উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে জেলে পুরছে। তাদের নিজস্ব পার্লামেন্ট এবং সুপ্রিম কোর্ট থাকলেও তার কোনও ক্ষমতা নেই।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরকে সন্ত্রাসবাদমুক্ত করতে ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে ন্যাশনাল অ্যাকশন প্ল্যান তৈরি করে পাকিস্তান। এমনকী পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের প্রধানমন্ত্রী ফারুক হায়দর পাকিস্তান সরকারের অন্য নেতাদের সঙ্গে টিভিতে সম্প্রচারিত একটি বিতর্কে অংশ নিলে সেখানে তাকে অপমানিত হতে হয়। হায়দরকে ইসলামাবাদ এখন দেশদ্রোহীর আখ্যা দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে ইসলামাবাদের সঙ্গে কথা বলতে আবেদন করেছেন তৈফুর। তৈফুরের সুরে সুর মিলিয়ে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতা বলেন, পাকিস্তানের রাজনৈতিক দলগুলি এই অঞ্চল এবং গিলগিটের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করছে দীর্ঘদিন ধরে। এই অঞ্চলে তাদের দোকানগুলি বন্ধ করতে হবে।  এই অঞ্চলের মানুষদের নিজস্ব দরকারে ব্যবহার করা ছাড়তে হবে ইসলামাবাদকে।

অপর নেতা সাজ্জাদ রাজা  বলেন, পাকিস্তান প্রথম থেকেই অবৈধ এবং অনৈতিক কাজে জড়িয়ে রয়েছে। পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরকে তারা নিজেদের কেনা সম্পত্তি মনে করে এবং এই এলাকার নাগরিকদের তাদের ক্রীতদাস বলে ভবে। সংবাদমাধ্যমের দ্বারা ইসলামাবাদকে তার বার্তা, এই অঞ্চলের মানুষরা তাদের ক্রীতদাস নয়, তা যেন বুঝে নেয় পাকিস্তান। সম্পাদনা : ইমরুল শাহেদ