রবিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭


আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে চেয়ারম্যান নিয়োগ হচ্ছে শিগগিরই


আমাদের অর্থনীতি :
13.09.2017

এস এম নূর মোহাম্মদ : শিগগিরই মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের জন্য গঠিত আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালে চেয়ারম্যান নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।। দীর্ঘ দুই মাস চেয়াম্যানের পদ খালি থাকার পর এ নিয়োগের জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

সুপ্রিম কোর্টের একটি সূত্রে জানা গেছে, ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠনসহ চেয়ারম্যানের নিয়োগ নিয়ে আলোচনা করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। প্রধান বিচারপতির দায়িত্বে থাকা বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার সঙ্গে গতকাল সুপ্রিম কোর্টে তার কার্যালয়ে এ নিয়ে আলোচনা হয়। বেলা আড়াইটা থেকে প্রায় আধাঘণ্টা ওই আলোচনা হয় বলে জানা গেছে।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী এ প্রতিবেদককে বলেন, ওনার সঙ্গে কিছু বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আর শিগগিরই ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান নিয়োগের কথা জানান মন্ত্রী। এর আগে গত ১৩ জুলাই ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হক মারা যান। এরপর আর চেয়ারম্যান নিয়োগ দেওয়া হয়নি। তার আগে তিনি অসুস্থ থাকায় দীর্ঘদিন ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম প্রায় বন্ধ ছিল। ওই সময় ট্রাইব্যুনালের অপর দুই বিচারপতি শুধু বিভিন্ন মামলার নতুন তারিখ দিয়ে যাচ্ছিলেন। চেয়ারম্যান না থাকায় স্থবির হয়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারিক কার্যক্রম। চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য থাকায় বিচারাধীন ৩৩টি মামলার বিচারিক কার্যক্রম শেষ করা যাচ্ছে না।  ট্রাইব্যুনালের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো রায় দিতে হলে

তিনজন বিচারপতির সমন্বয়ে কোরাম পূরণ করতে হয়। তিনজন বিচারপতি ছাড়া রায় ঘোষণার কোনো সুযোগ নেই। সূত্র জানায়, ট্রাইব্যুনালে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের ৩৩টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এসব মামলার মধ্যে সাতটি সাক্ষ্য গ্রহণ পর্যায়ে, ১০টি অভিযোগ গঠনের পর্যায়ে এবং ১৬টি মামলার শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে। এ ছাড়া একটি মামলা রায়ের জন্য অপেক্ষমান রয়েছে বলে জানা গেছে। সম্পাদনা : উম্মুল ওয়ারা সুইটি