বৃহস্পতিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » আজ ও ১৫ অক্টোবর এয়ারলাইন্সে বুকিং
    স্ত্রী যাচ্ছেন না, একাই বিদেশে যাচ্ছেন এসকে সিনহা


আজ ও ১৫ অক্টোবর এয়ারলাইন্সে বুকিং
স্ত্রী যাচ্ছেন না, একাই বিদেশে যাচ্ছেন এসকে সিনহা


আমাদের অর্থনীতি :
13.10.2017

এস এম নূর মোহাম্মদ : বিদেশে যাচ্ছেন ছুটিতে থাকা প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। আজ শুক্রবার রাতেই প্রধান বিচারপতির অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করার কথা রয়েছে। সে অনুযায়ী সরকারি আদেশ (জিও) জারি করেছে আইন মন্ত্রণালয়। তবে কোনো কারণে আজ না গেলে ১৫ অক্টোবরও যেতে পারেন বলে জানিয়েছে একটি সূত্র। সূত্র জানিয়েছে, প্রধান বিচারপতি অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য আজ এবং ১৫ অক্টোবর এয়ারলাইন্সে বুকিং দিয়ে রেখেছেন। তবে তার সঙ্গে স্ত্রী সুষমা সিনহার ভিসা হলেও তিনি এখন যাচ্ছেন না বলে জানা গেছে। আর স্ত্রী কবে যাচ্ছেন সে ব্যাপারে কোনো কিছু নিশ্চিত করা যায়নি। এদিকে প্রধান বিচারপতি অস্ট্রেলিয়া প্রথমে গেলেও তিনি কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যও ভ্রমণ করবেন বলে জানা গেছে। আর এ সফর তার ব্যক্তিগত, সেখানে সরকারের কোনো আর্থিক সংশ্লিষ্টতা নেই বলে জানানো হয়েছে প্রধান বিচারপতির অনুমতি চাওয়ার আবেদনে। এর আগে মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি ১৩ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত বিদেশে যাওয়ার জন্য রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করে একটি চিঠি দেন। চিঠিতে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি শারীরিকভাবে অসুস্থ ও মানসিকভাবে অবসাদগ্রস্ত। বিদেশে তার বিশ্রাম প্রয়োজন। পরে তাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের স্বাক্ষরের পর বৃহস্পতিবার আইন মন্ত্রণালয় আদেশ জারি করে।

আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক স্বাক্ষরিত ওই আদেশে বলা হয়, প্রধান বিচারপতির আবেদনে এর আগে ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ৩০ দিনের ছুটি মঞ্জুর করেছিলেন রাষ্ট্রপতি। কিন্তু বিচারপতি সিনহা যেহেতু আরও বেশি দিন বিদেশে থাকবেন, সেহেতু রাষ্ট্রপতি নতুন আদেশ দিয়েছেন। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বর্ধিত ছুটিতে প্রধান বিচারপতির বিদেশে অবস্থানের সময়ে, অর্থাৎ ২ নভেম্বর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত, অথবা তিনি দায়িত্বে না ফেরা পর্যন্ত বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা প্রধান বিচারপতির কার্যভার সম্পাদন করবেন।

এর আগে প্রধান বিচারপতি শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটি নেন। যদিও প্রচ- চাপে প্রধান বিচারপতিকে ছুটিতে যেতে বাধ্য করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে বিএনপি। এছাড়া বিষয়টিকে নজীরবিহীন উল্লেখ করে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবীরা। ছুটি নেওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় তিনি অস্ট্রেলিয়া দূতাবাসে ভিসার জন্য আবেদন করেন। একইসঙ্গে আবেদন করা হয় তার স্ত্রী সুষমা সিনহার ভিসার জন্যও। প্রধান বিচারপতির ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, তারা দুজনে ৩ বছরের ভিসা পেয়েছেন। সম্পাদনা : হুমায়ুন কবির খোকন